https://public-voice24.com/wp-content/uploads/2022/03/favicon.ico-300x300.png
ঢাকাশনিবার , ৪ঠা ফেব্রুয়ারি, ২০২৩ খ্রিস্টাব্দ

ভূঞাপুরে মেম্বার প্রার্থী কাদের মন্ডলের সমর্থকের উপর প্রতিপক্ষের হামলা

পাবলিক ভয়েস
ডিসেম্বর ১৭, ২০২১ ২:৪৩ অপরাহ্ণ
Link Copied!

ভূঞাপুরে মেম্বার প্রার্থী কাদের মন্ডলের সমর্থকের উপর প্রতিপক্ষের হামলা

নিজস্ব প্রতিবেদক:
চতুর্থ ধাপে আগামী ২৬ ডিসেম্বর টাঙ্গাইলের ভূঞাপুরে ইউনিয়ন পরিষদ (ইউপি) নির্বাচনকে কেন্দ্র করে ৪নং গোবিন্দাসী ইউনিয়নের ৬নং ওয়ার্ডের মেম্বার প্রার্থী আব্দুল কাদের মন্ডল (তালা প্রতীক) ও তার প্রতিদ্বন্দ্বী মেম্বার প্রার্থী আনোয়ার হোসেন (মোরগ প্রতীক) এবং তাদের সমর্থকদের মধ্যে নির্বাচনী সহিংসতায় সংঘর্ষের ঘটনা ঘটেছে। বৃহস্পতিবার (১৬ ডিসেম্বর) রাত ১২ টার দিকে চিতুলিয়াপাড়া গ্রামে এ ঘটনা ঘটে। এতে কাদের মন্ডল ও আনোয়ারসহ উভয় পক্ষের কমপক্ষে ৬ জন আহত হয়েছে। এরমধ্যে কাদের মন্ডলের ৫ জন আহত হয়েছে বলে জানা যায়। খবর পেয়ে ঘটনাস্থলে পুলিশ পৌঁছে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনে।

জানা যায়, মেম্বারপ্রার্থী কাদের মন্ডল তার কয়েকজন কর্মী নিয়ে বৃহস্পতিবার রাত ১২ টার দিকে চিতুলিয়া পাড়ায় ভোট প্রার্থনা করছিল। এমন সময় মেম্বার প্রার্থী আনোয়ার হোসেন ২০ থেকে ৩০ জনের একটি বাহিনী নিয়ে দা হাতে গ্রামে মহড়া দিচ্ছিল এবং প্রতিপক্ষের সমর্থকদের আক্রমণ করার জন্য খুঁজতে থাকেন। একপর্যায়ে কাদের মন্ডলের নির্বাচনী প্রচারণার খোঁজ পেয়ে চিতুলিয়াপাড়া গ্রামের (বন্দে আলী ডা: এর বাড়ির সামনে) তার সমর্থকদেরকে সামনে পেয়েই লাঠিসোঁটা নিয়ে অতর্কিত হামলা চালায়। এতে ৪-৫ জন আহত হয়। পরে স্থানীয়রা তাদেরকে উদ্ধার করে ভূঞাপুর উপজেলা স্বাস্থ্যকমপ্লেক্সে ভর্তি করে। আহতরা চিকিৎসাধীন রয়েছে। এদিকে, তার প্রতিদ্বন্দ্বী প্রার্থী আনোয়ার হোসেন আহত হয়ে টাঙ্গাইল জেনারেল হাসপাতালে চিকিৎসাধীন বলে জানা গেছে।

মেম্বারপ্রার্থী কাদের মন্ডলের ভাতিজা মুহাইমিনুল ইসলাম হৃদয় জানান, হামলার ঘটনার বিষয়ে থানায় ও নির্বাচন রির্টানিং কর্মকর্তা বরাবর অভিযোগ করার প্রস্তুতি চলছে।

কাদের মন্ডলের অভিযোগের বিষয়ে বক্তব্য নেওয়ার জন্য তার প্রতিদ্বন্দ্বি মেম্বারপ্রার্থী আনোয়ার হোসেনকে একাধিকবার মোবাইলে ফোন করেও যোগাযোগ করা সম্ভব হয়নি।

এ ঘটনার বিষয়ে ভূঞাপুর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মো. আব্দুল ওহাব মোবাইল ফোনে জানান, এ বিষয়ে নির্বাচন কর্মকর্তা ও ইউএনও মহোদয়ের সাথে যোগাযোগ করুন।

এ বিষয়ে উপজেলা নির্বাচন অফিসার নাজমা সুলতানা জানান, সংঘর্ষের ঘটনার বিষয়ে আমার জানা নেই। আপনার (সাংবাদিক) মাধ্যমে জানতে পারলাম। তবে, কেউ অভিযোগ করলে তদন্তপূর্বক প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেওয়া হবে।