Wednesday 5th October 2022

পাবলিক ভয়েস

পৃথিবীর মানুষের জন্য একটি কণ্ঠস্বর

মেলান্দহে বিরোধপূর্ণ জমিতে পৌরসভার মার্কেট নির্মাণ কাজ বন্ধের দাবিতে মানববন্ধন।

ডিসেম্বর ২৫, ২০২১ by পাবলিক ভয়েস
No Comments

জামালপুরের মেলান্দহ উপজেলার হাজরাবাড়ী পৌরসভায় জমির মালিকানা নিয়ে মামলায় উচ্চ আদালতের নিষেধাজ্ঞা থাকায় হাজরাবাড়ী পৌর সুপার মার্কেট নির্মাণ কাজ বন্ধ রাখার দাবিতে মানববন্ধন করেছেন ভুক্তভোগী হাসনা বেওয়া ও তার পরিবারের সদস্যরা।

শনিবার (২৫ ডিসেম্বর) দুপুরে হাজরাবাড়ী বাজারে এই মানবন্ধনের আয়োজন করা হয়।

মানববন্ধনে বক্তব্য রাখেন, হাজরাবাড়ী পৌর এলাকার আদিয়ারপাড়া গ্রামের মৃত শামছুল হক আকন্দের স্ত্রী হাসনা বেওয়া, তার ছেলে মো. একরামুল হক আকন্দ, বীর মুক্তিযোদ্ধা আব্দুস সামাদ ও স্থানীয় ব্যবসায়ী সুলতান মাহমুদ প্রমুখ।

ভুক্তভোগী একরামুল হক আকন্দ অভিযোগ করে জানান, হাজরাবাড়ী বাজারের উত্তরপাশে সিএস খতিয়ান মূলে তাদের দুই একর ৩ শতাংশ জমি আছে। কিন্তু বিআরএস ও আরওআর খতিয়ানে তাদের পুরো জমি সরকারি খাস খতিয়ানভুক্ত হয়ে যায়। এ ব্যাপারে তার মা হাসনা বেওয়া বাদী হয়ে ওই জমি নিজেদের দাবি করে জামালপুর জেলা জজ আদালতে মামলা দায়ের করেন। তাদের মামলার আরওআর রেকর্ড সংক্রান্ত মামলাটি বর্তমানে চলমান আছে। কিন্তু বিআরএস রেকর্ড সংক্রান্ত মামলায় তারা হেরে যান।

তিনি আরো জানান, এ ব্যাপারে তারা সুপ্রিম কোর্টের হাই কোর্ট ডিভিশনে রিটপিটিশন দাখিল করেন। গত ২৮ নভেম্বর ওই রিটপিটিশনের শুনানি হয় এবং ৬ ডিসেম্বর এক আদেশে উচ্চ আদালত বিরোধপূর্ণ জমিতে আগামী ছয়মাস পর্যন্ত স্থাপনা নির্মাণ কাজ বন্ধ রাখার অস্থায়ী নিষেধাজ্ঞা জারি করেন। ওই জমিতে উচ্চ আদালতের নিষেধাজ্ঞার সাইনবোর্ড টানিয়ে দেয়া হলে কে বা কারা রাতের অন্ধকারে সেই সাইনবোর্ডও তুলে নিয়ে গেছে।
উচ্চ আদালতের নিষেধাজ্ঞা অমান্য করে পৌর সুপার মার্কেট নির্মাণ কাজও বন্ধ করেনি উপজেলা প্রশাসন। বিষয়টি উচ্চ আদালতে নিষ্পত্তি না হওয়া পর্যন্ত তাদের জমিতে পৌর সুপার মার্কেট নির্মাণ কাজ বন্ধ রাখার দাবি জানান তিনি।

এদিকে এই বিরোধপূর্ণ জমি নিয়ে উচ্চ আদালতের অস্থায়ী নিষেধাজ্ঞার বিষয়ে মেলান্দহ উপজেলা সহকারী কমিশনার (ভূমি) মো. সিরাজুল ইসলাম বলেন, বিআরএস ও আরওআর রেকর্ডমূলে সরকারি খাস খতিয়ানভুক্ত জমিতেই এলজিইডি হাজরাবাড়ী পৌর সুপার মার্কেট নির্মাণ করছে। ওই জমির মালিকানার দাবিদাররা জেলা জজ আদালতে দুটি মামলা করেন। একটি মামলা চলমান আছে। অন্যটিতে সরকারের পক্ষে রায় হয়েছে। মামলায় হেরে তারা উচ্চ আদালতে রিটপিটিশন করেছেন শুনেছি। পৌর সুপার মার্কেট নির্মাণ কাজ বন্ধ রাখার জন্য উচ্চ আদালতের অস্থায়ী নিষেধাজ্ঞা জারি হওয়ার কথাও লোকমুখে শুনেছি। এ বিষয়ে আইনগত পদক্ষেপ গ্রহণ করা হবে।

উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) শফিকুল ইসলাম বলেন,এ বিষয়ে আমি শুনেছি প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেয়া হচ্ছে।

সাকিব আল হাসান নাহিদ, জামালপুর

Leave a Reply

Your email address will not be published.