https://public-voice24.com/wp-content/uploads/2022/03/favicon.ico-300x300.png
ঢাকাশনিবার , ৪ঠা ফেব্রুয়ারি, ২০২৩ খ্রিস্টাব্দ

আজ টাঙ্গাইলে ২১ ইউপির ভোটগ্রহণ

পাবলিক ভয়েস
ডিসেম্বর ২৬, ২০২১ ২:১৭ পূর্বাহ্ণ
Link Copied!

আজ রবিবার টাঙ্গাইলের ৩টি উপজেলার ২১টি ইউনিয়ন পরিষদের নির্বাচন অনুষ্ঠিত হবে। এদিন সকাল ৮টা থেকে বিরতিহীনভাবে বিকেল ৪টা পর্যন্ত ভোটগ্রহণ চলবে। নির্বাচনে আইনশৃঙ্খলা রক্ষায় ৯ প্লাটুন বিজিবি মোতায়েন করা হয়েছে।

নির্বাচনে চেয়ারম্যান পদে ৯৭ জন প্রার্থী প্রতিদ্বন্দ্বিতা করবেন। সাধারণ সদস্য পদে ৬৪০ জন এবং সংরক্ষিত পদে ২১৬ জন প্রার্থী প্রতিদ্বন্দ্বিতা করবেন।

ইতিমধ্যে বিনা প্রতিদ্বন্দ্বিতায় ২ জন প্রার্থী সাধারণ সদস্য পদে নির্বাচিত হয়েছেন। নির্বাচনে মোট ভোটার ৫ লাখ ৬ হাজার ১৪৭ জন। ভোট কেন্দ্র ২১৫টি।

এছাড়াও একই সময়ে দেলদুয়ার উপজেলায় মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান পদে নির্বাচন অনুষ্ঠিত হবে। নির্বাচনে ৩ জন প্রার্থী প্রতিদ্বন্দ্বিতা করবেন।

জেলা নির্বাচন অফিস সূত্রে জানা যায়, চতুর্থ দফায় টাঙ্গাইল সদর, ভূঞাপুর এবং ঘাটাইল উপজেলায় ইউনিয়ন পরিষদের নির্বাচনে হবে। এছাড়া দেলদুয়ার উপজেলায় মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান পদে নির্বাচন অনুষ্ঠিত হবে। ঘাটাইল উপজেলায় আনেহলা, ঘাটাইল, দিগড়, দিগড়কান্দি, দেউলাবাড়ী, দেওপাড়া, লোকেরপাড়া; টাঙ্গাইল সদর উপজেলায় করটিয়া, গালা, ঘারিন্দা, দাইন্যা, পোড়াবাড়ি, বাঘিল, মগড়া, হুগড়া; ভূঞাপুর উপজেলায় অর্জুনা, অলোয়া, গাবসারা, গোবিন্দাসী, নিকরাইল এবং ফলদা ইউনিয়নে নির্বাচন অনুষ্ঠিত হবে।

 

টাঙ্গাইল উপজেলা : এ উপজেলায় ৮টি ইউনিয়নে নির্বাচন অনুষ্ঠিত হবে। ইউনিয়নগুলো হলো- করটিয়া, গালা, ঘারিন্দা, দাইন্যা, পোড়াবাড়ি, বাঘিল, মগড়া এবং হুগড়া। এ উপজেলায় চেয়ারম্যান প্রার্থী ৪২ জন চেয়ারম্যান প্রার্থী প্রতিদ্বন্দ্বিতা করবেন। এসব ইউনিয়নে মোট ভোট কক্ষ ৮৭টি। মোট ভোটার ২ লাখ ৪ হাজার ৮০১।

 

ঘারিন্দা ইউনিয়ন: এ ইউনিয়নে ২ জন চেয়ারম্যান প্রার্থী প্রতিদ্বন্দ্বিতা করবেন। এরা হলেন- আওয়ামী লীগের প্রার্থী তোফায়েল আহমেদ (নৌকা) এবং স্বতন্ত্র প্রার্থী আবুল হোসেন সরকার আবু (আনারস)। নির্বাচনে মোট ভোট কেন্দ্র ১০টি এবং ভোট কক্ষ ৭২টি। এ ইউনিয়নে মোট ভোটার ২৫ হাজার ৭১৫ জন।

 

করটিয়া ইউনিয়ন: এ ইউনিয়নে ২ জন চেয়ারম্যান প্রার্থী প্রতিদ্বন্দ্বিতা করবেন। এরা হলেন- আওয়ামী লীগের প্রার্থী খালেকুজ্জামান চৌধুরী (নৌকা) এবং স্বতন্ত্র প্রার্থী জাদিলুল হক (মোটরসাইকেল)। নির্বাচনে মোট ভোট কেন্দ্র ১৫টি এবং ভোট কক্ষ ১০০টি। এ ইউনিয়নে মোট ভোটার ৩৬ হাজার ৯৭ জন।

 

পোড়াবাড়ী ইউনিয়ন: এ ইউনিয়নে ৭ জন চেয়ারম্যান প্রার্থী প্রতিদ্বন্দ্বিতা করবেন। এরা হলেন- আওয়ামী লীগের প্রার্থী (নৌকা) ফজলুজ্জামান রশীদ এবং জাতীয় পার্টির প্রার্থী আফজাল হোসেন জয়নাল (লাঙ্গল), স্বতন্ত্র প্রার্থী জাহিদ হাসান (অটোরিকশা), মিজানুর রহমান (মোটরসাইকেল), শাহাদত হোসেন (আনারস), হালিম মিয়া (ঘোড়া), শরিফুর রহমান (চশমা)। নির্বাচনে মোট ভোট কেন্দ্র ১০টি এবং ভোট কক্ষ ৫০টি। এ ইউনিয়নে মোট ভোটার ১৭ হাজার ৩১৭ জন।

 

গালা ইউনিয়ন: এ ইউনিয়নে ৩ জন চেয়ারম্যান প্রার্থী প্রতিদ্বন্দ্বিতা করবেন। এরা হলেন- আওয়ামী লীগের প্রার্থী রাজ কুমার সরকার (নৌকা), ইসলামী আন্দোলন বাংলাদেশের প্রার্থী কামাল হোসেন (হাতপাখা) এবং স্বতন্ত্র প্রার্থী নজরুল ইসলাম খান (মোটরসাইকেল)। নির্বাচনে মোট ভোট কেন্দ্র ১০টি এবং ভোট কক্ষ ৬৫টি। এ ইউনিয়নে মোট ভোটার ২২ হাজার ৮৩৫ জন।

 

মগড়া ইউনিয়ন: এ ইউনিয়নে ৬ জন চেয়ারম্যান প্রার্থী প্রতিদ্বন্দ্বিতা করবেন। এরা হলেন- আওয়ামী লীগের প্রার্থী আজহারুল ইসলাম (নৌকা), ইসলামী আন্দোলন বাংলাদেশের প্রার্থী আলমগীর হোসাইন (হাতপাখা), স্বতন্ত্র প্রার্থী মোহাম্মদ কামাল হোসাইন (চশমা), মোতালিব হোসেন (আনারস), শফিকুল ইসলাম বুলবুল (মোটরসাইকেল)। নির্বাচনে মোট ভোট কেন্দ্র ৯টি এবং ভোট কক্ষ ৭৬টি। এ ইউনিয়নে মোট ভোটার ২৬ হাজার ৭১১ জন।

 

হুগড়া ইউনিয়ন: এ ইউনিয়নে ৭ জন চেয়ারম্যান প্রার্থী প্রতিদ্বন্দ্বিতা করবেন। এরা হলেন- আওয়ামী লীগের প্রার্থী তোফাজ্জল হোসেন খান (নৌকা), স্বতন্ত্র প্রার্থী আব্দুল মান্নান খান (আনারস), মাসুম ফেরসৌদ (অটোরিকশা), মুহাম্মদ আবুল হোসেন (ঘোড়া), মোহাম্মদ নূর-ই আলম (মোটরসাইকেল), মোরশেদ আলম দুলাল (চশমা), শামীম আল মামুন (টেলিফোন)। নির্বাচনে মোট ভোট কেন্দ্র ১২টি এবং ভোট কক্ষ ৭৬টি। এ ইউনিয়নে মোট ভোটার ২৫ হাজার ৮৮৮ জন।

 

বাঘিল ইউনিয়ন: এ ইউনিয়নে ৬ জন চেয়ারম্যান প্রার্থী প্রতিদ্বন্দ্বিতা করবেন। এরা হলেন- আওয়ামী লীগের প্রার্থী এসএম মতিয়ার রহমান (নৌকা), ইসলামী আন্দোলনের প্রার্থী মোহাম্মদ আরিফুর রহমান (হাতপাখা), জাতীয় পার্টির প্রার্থী ইউসুস আলী মামুন (লাঙ্গল), বাংলাদেশ তরীকত ফেডারেশন (বিটিএফ) জুলহাস উদ্দিন (ফুলেল মালা), স্বতন্ত্র প্রার্থী আবু জাফর (মোটরসাইকেল), রফিকুল ইসলাম সোহাগ (আনারস)। নির্বাচনে মোট ভোট কেন্দ্র ১০ এবং ভোট কক্ষ ৬৮টি। এ ইউনিয়নে মোট ভোটার ২৩ হাজার ৮২৭ জন।

 

দ্যাইনা ইউনিয়ন:এ ইউনিয়নে ৪ জন চেয়ারম্যান প্রার্থী প্রতিদ্বন্দ্বিতা করবেন। এরা হলেন- আফজাল হোসেন (নৌকা), জাতীয় পার্টির প্রার্থী জাকির হোসেন (লাঙল), স্বতন্ত্র প্রার্থী আজহারুল ইসলাম সায়েম (ঘোড়া) এবং লাভলু মিয়া (আনারস)। নির্বাচনে মোট ভোট কেন্দ্র ১১ এবং ভোট কক্ষ ৭৫টি। এ ইউনিয়নে মোট ভোটার ২৬ হাজার ৪১১ জন।

 

ভূঞাপুর উপজেলা : এ উপজেলায় ৬টি ইউনিয়নে নির্বাচন অনুষ্ঠিত হবে। ইউনিয়নগুলো হলো- অর্জুনা, অলোয়া, গাবসারা, গোবিন্দাসী, নিকরাইল এবং ফলদা। এসব ইউনিয়নে চেয়ারম্যান প্রার্থী ১৫ জন প্রতিদ্বন্দ্বিতা করবেন। মোট ভোট কেন্দ্র ৬০টি, মোট ভোট কক্ষ ৩৭২টি। মোট ভোট ভোটার ১ লাখ ৩৫ হাজার ৯৭১ জন।

 

ঘাটাইল উপজেলা : এ উপজেলায় ৭টি ইউনিয়নে নির্বাচন অনুষ্ঠিত হবে। ইউনিয়নগুলো হলো- আনেহলা, ঘাটাইল, দিগড়, দিগড়কান্দি, দেউলাবাড়ী, দেওপাড়া, লোকেরপাড়া। এসব ইউনিয়নে চেয়ারম্যান প্রার্থী ৪০ জন প্রার্থী প্রতিন্দ্বিতা করবে। মোট ভোট কেন্দ্র ৬৮টি, মোট ভোট কক্ষ ৪০৭টি। মোট ভোট ভোটার ১ লাখ ৬৫ হাজার ৩৭৫ জন।

 

এ ব্যাপারে টাঙ্গাইল জেলা নির্বাচন কর্মকর্তা এ এইচ এম কামরুল হাসান বলেন, নির্বাচনে ৯ প্লাটুন বিজিবি মোতায়েন করা হয়েছে। এছাড়া ৮ জন জুডিসিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট এবং ১৮ জন নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট দায়িত্ব পালন করবেন। গুরুত্বপূর্ণ কেন্দ্রে ৬ জন করে পুলিশ এবং সাধারণ কেন্দ্রে ৫ জন করে পুলিশ সদস্য দায়িত্ব পালন করবেন। একই সাথে প্রতিটি কেন্দ্রে ১৮ জন করে আনসার সদস্যও দায়িত্ব পালন করবেন। এছাড়া প্রতিটি উপজেলায় র‌্যাব এবং ডিবির টিমও কাজ করবেন।

 

তিনি আরো বলেন, আশা করছি বিগত সময়ের মতো এবারও নির্বাচন সুষ্ঠু এবং অবাধ হবে। এ লক্ষে সকল প্রস্ততি নেয়া হয়েছে বলে তিনি জানান।