https://public-voice24.com/wp-content/uploads/2022/03/favicon.ico-300x300.png
ঢাকাশুক্রবার , ২৭শে জানুয়ারি, ২০২৩ খ্রিস্টাব্দ

ভোট কারচু‌পির অ‌ভি‌যোগ জাপা প্রার্থীর

পাবলিক ভয়েস
জানুয়ারি ১৬, ২০২২ ৭:৪৩ অপরাহ্ণ
Link Copied!

টাঙ্গাইল ডেস্ক: টাঙ্গাইল-৭ (মির্জাপুর) আসনের উপনির্বাচনে একাধিক ভোটকেন্দ্রে জাতীয় পার্টি (জাপা) এজেন্টদের ঢুকতে না দেওয়া ও ভোট কারচুপির অভিযোগ করেছেন জাতীয় পার্টি মনোনীত প্রার্থী মো. জহিরুল ইসলাম জহির (লাঙল)। রবিবার (১৬ জানুয়ারি) দুপুরে মির্জাপুর এস কে পাইলট মডেল উচ্চ বিদ্যালয় কেন্দ্রে সাংবাদিকদের সামনে এই অভিযোগ করেন সে।,
জহিরুল ইসলাম বলেন, ইভিএম মে‌শি‌নে ভোটার‌দের জোরপূর্বক নি‌র্দিষ্ট ব্যাল‌টে টিপ (চাপ) দি‌তে বলা হচ্ছে। বেশ কিছু কে‌ন্দ্রে তারা ভোট জোর ক‌রে নি‌চ্ছে। এছাড়াও ১২১টি ভোটকেন্দ্রে পোস্টার ছিঁড়ে ফেলা হয়েছে। এ ছাড়া ভোটকেন্দ্র থেকে এজেন্টদের বের করে দেওয়া হয়েছে। কিছু কিছু কেন্দ্রে এজেন্ট ঢুকতেই দেওয়া হয়নি।
তিনি আরও বলেন, জোর করে নৌকায় ভোট দেওয়ার জন্য নৌকা প্রার্থীর এজেন্টরা চাপ দিচ্ছেন। বিষয়গুলো দলের হাই কমান্ডাদের জানানো হয়েছে।
এছড়া রিটার্নিং কর্মকর্তাদের মৌখিকভাবে জানানো হয়েছে। তারা কোনও পদক্ষেপ নেননি।এদিকে, আওয়ামী লীগ মনোনীত নৌকা প্রতীকের প্রার্থী খান আহমেদ শুভ বলেন, মির্জাপুরের মানুষ উন্নয়নের ধারা অব্যাহত রাখতে স্বতঃস্ফূর্তভাবে নৌকা প্রতীকে ভোট দিচ্ছেন। কোথাও কোনও ঝামেলা হচ্ছে না। আমি বিজয়ের ব্যাপারে শতভাগ আশাবাদী।
টাঙ্গাইল জেলা নির্বাচন কর্মকর্তা এ এইচ এম কামরুল হাসান জানান, ভোটার উপস্থিতি কম থাকলেও নির্বাচন সুষ্ঠু ও শান্তিপূর্ণ হচ্ছে। তবে বেলা বাড়ার সঙ্গে সঙ্গে ভোটার উপস্থিতি বাড়ছে। কোনও প্রার্থী কোনও ধরনের অভিযোগ করেননি।
প্রসঙ্গত, টাঙ্গাইল-৭ আসনে মোট ভোটার তিন লাখ ৪০ হাজার ৩৭৯। তাদের মধ্যে পুরুষ ভোটার এক লাখ ৬৯ হাজার ৮৭৮ ও নারী ভোটার এক লাখ ৭০ হাজার ৫০১।এর মধ্যে তৃতীয় লিঙ্গের পাঁচ জন ভোটার রয়েছে।