https://public-voice24.com/wp-content/uploads/2022/03/favicon.ico-300x300.png
ঢাকাশুক্রবার , ২৭শে জানুয়ারি, ২০২৩ খ্রিস্টাব্দ

শুরুতেই এলোমেলো আফগানিস্তান নাসুমের আঘাতে

পাবলিক ভয়েস
মার্চ ৩, ২০২২ ৫:৪১ অপরাহ্ণ
Link Copied!

সিরিজের প্রথম টি-টোয়েন্টিতে ১৫৬ রানের লক্ষ্য ছুঁড়ে দিয়ে শুরুতেই আফগানিস্তানকে এলোমেলো করে ছেড়েছে বাংলাদেশ। এক নাসুম আহমেদের স্পিনেই বিদায় নিয়েছেন ৪জন। ৫.৩ ওভার শেষে আফগানদের সংগ্রহ ৪ উইকেটে ২৭ রান।

বাংলাদেশের উইকেট উৎসব শুরু হয় প্রথম ওভারেই। চতুর্থ বলে মেরে খেলতে গিয়ে বিপদ ডেকে আনেন ওপেনার রহমানুল্লাহ গুরবাজ। টপ এজ হয়ে বল জমা পড়ে ইয়াসির আলীর হাতে। তাতে রানের খাতা না খুলেই সাজঘরে ফিরেছেন আফগান ওপেনার।

মেহেদীর দ্বিতীয় ওভারেও উইকেট নেওয়ার সুযোগ ছিল। কভারে হজরতউল্লাহ জাজাইয়ের ক্যাচ ফেলে দিয়েছেন মুনিম শাহরিয়ার। পরের বলে অবশ্য আর রক্ষা হয়নি আফগান ওপেনারের। মেরে খেলতে গিয়ে এজ হয়ে জাজাই ক্যাচ তুলে দেন মোহাম্মদ নাঈমের কাছে। ফেরার আগে তিনি করেছেন ৬ রান। এক বল বিরতি গিয়ে নতুন নামা দারউইশ রাসুলিও বোল্ড হয়েছেন। নাসুমের ঘূর্ণি বলে সুইপ করতে গিয়ে আরও চাপ বাড়িয়ে দেন তিনি।

আফগানদের চেপে ধরার সময়টায় চতুর্থ ওভারে আবারও ক্যাচ মিস করে বাংলাদেশ। মোস্তাফিজের বলে জাদরানের ক্যাচ গ্লাভসে জমাতে পারেননি লিটন। নাসুম অবশ্য তাকে থিতু হতে দেননি পরের ওভারে। এবার ক্যাচ দিয়ে সাজঘরে ফিরেছেন করিম জানাত। তিনি করতে পারেন ৬ রান। একই ওভারের পঞ্চম বলেও উইকেটের তুলে নিয়েছিলেন নাসুম। মোহাম্মদ নবীকে এলবিডাব্লিউ করেছিলেন। কিন্তু আফগান ব্যাটার রিভিউ নিলে বেঁচে যান তিনি।

শুরুতে টস জিতে ব্যাটিং করে বাংলাদেশ। মিরপুর শেরেবাংলা স্টেডিয়ামে লিটনের ফিফটিতে স্বাগতিকরা নির্ধারিত ২০ ওভারে ৮  উইকেটে করে ১৫৫ রান। অভিজ্ঞরা ব্যর্থ হলেও লিটন দাসের ৬০ রানের ইনিংসই ছিল মূল হাইলাইটস। একপ্রান্ত আগলে রেখে দারুণ ব্যাটিংয়ে হাফসেঞ্চুরি করে দলকে পথ দেখান তিনি। এই ব্যাটার ৪৪ বলে ৪ বাউন্ডারি ও ২ ছক্কায় খেলেন ৬০ রানের ইনিংস।

আফগানিস্তানের সবচেয়ে সফল বোলার ফারুকী। এই পেসারের ৪ ওভারে মাত্র ২৭ রান দিয়ে শিকার ২ উইকেট। তার মতো ২ উইকেট পেয়েছেন আজমতউল্লাহ ওমরজাই। আর একটি করে উইকেট নিয়েছেন রশিদ খান ও কাইস।