https://public-voice24.com/wp-content/uploads/2022/03/favicon.ico-300x300.png
ঢাকাশুক্রবার , ৩রা ফেব্রুয়ারি, ২০২৩ খ্রিস্টাব্দ

জেনে নিন জাতীয় চলচ্চিত্র পুরস্কার প্রদানের সম্ভাব্য তারিখ

পাবলিক ভয়েস
মার্চ ৮, ২০২২ ১:২৭ অপরাহ্ণ
Link Copied!

বঙ্গবন্ধু আন্তর্জাতিক সম্মেলন কেন্দ্রে এক অনুষ্ঠানের মাধ্যমে আগামী ২৩ মার্চ বিজয়ীদের হাতে তুলে দেওয়া হবে ‘জাতীয় চলচ্চিত্র পুরস্কার-২০২০’। গণমাধ্যমকে এমন সম্ভাবণার কথা জানিয়েছেন তথ্য ও সম্প্রচার মন্ত্রণালয়ের উপসচিব (চলচ্চিত্র-১) সাইফুল ইসলাম।

তিনি বলেছেন, ‘আপাতত প্রাথমিক আলোচনা হয়েছে। প্রধানমন্ত্রীর দপ্তর থেকে আমাদের কনফার্মেশন দিলে আগামী ২৩ মার্চ পুরস্কার প্রদানের তারিখ হিসেবে চূড়ান্ত করব। এছাড়া প্রধানমন্ত্রী ভার্চুয়ালি নাকি সরাসরি আয়োজনে উপস্থিত থাকবেন, তাও এখনও চূড়ান্ত হয়নি।’

গত ১৫ ফেব্রুয়ারি তথ্য মন্ত্রণালয়ের এক প্রজ্ঞাপনে ২৭টি ক্যাটাগরিতে ‘জাতীয় চলচ্চিত্র পুরস্কার-২০২০’ বিজয়ীদের নাম ঘোষণা করা হয়। সেখানে সর্বাধিক ১১টি বিভাগে ১২টি পুরস্কার জিতেছে গাজী রাকায়েত পরিচালিত ছবি ‘গোর’-এর শিল্পী এবং কলাকুশলীরা।

‘বিশ্বসুন্দরী’ ছবিতে অভিনয়ের জন্য ২০২০ সালের সেরা অভিনেতা নির্বাচিত হয়েছেন চিত্রনায়ক সিয়াম আহমেদ। সেরা অভিনেত্রীর পুরস্কার পাচ্ছেন ‘গোর’ ছবির দীপান্বিতা মার্টিন। সেরা ছবি যৌথভাবে ‘গোর’ ও ‘বিশ্বসুন্দরী’। এবার আজীবন সম্মাননা পাচ্ছেন আনোয়ারা বেগম ও রাইসুল ইসলাম আসাদ।

একনজরে দেখে নিন ‘জাতীয় চলচ্চিত্র পুরস্কার-২০২০’

আজীবন সম্মাননা (যৌথভাবে)- আনোয়ারা বেগম ও রাইসুল ইসলাম আসাদ।

সেরা চলচ্চিত্র (যৌথভাবে)- ‘গোর’ ও ‘বিশ্বসুন্দরী’।

সেরা স্বল্পদৈর্ঘ্য চলচ্চিত্র- ‘আড়ং’।

সেরা প্রামাণ্য চলচ্চিত্র- ‘বঙ্গবন্ধুর রাজনৈতিক জীবন ও বাংলাদেশের অভ্যুদয়’।

সেরা পরিচালক- গাজী রাকায়েত (গোর)।

সেরা অভিনেতা- সিয়াম আহমেদ (বিশ্বসুন্দরী)।

সেরা অভিনেত্রী- দীপান্বিতা মার্টিন (গোর)।

সেরা পার্শ্ব অভিনেতা- ফজলুর রহমান বাবু (বিশ্বসুন্দরী)।

সেরা পার্শ্ব অভিনেত্রী : অপর্ণা ঘোষ (গণ্ডি)।

সেরা খল অভিনেতা- মিশা সওদাগর (বীর)।

সেরা শিশুশিল্পী : মুগ্ধতা মোরশেদ ঋদ্ধি (গণ্ডি)।

শিশুশিল্পী বিভাগে বিশেষ পুরস্কার- মো. শাহাদাৎ হোসেন বাঁধন (আড়ং)।

সেরা সংগীত পরিচালক- বেলাল খান (হৃদয়জুড়ে)।

সেরা নৃত্য পরিচালক- প্রয়াত মো. শহিদুর রহমান (বিশ্বসুন্দরী)।

সেরা গায়ক- ইমরান মাহমুদুল (বিশ্বসুন্দরী)।

সেরা গায়িকা (যৌথভাবে)- দিলশাদ নাহার কনা (বিশ্বসুন্দরী) ও সোমনুর মনির কোনাল (বীর)।

সেরা গীতিকার- কবির বকুল (বিশ্বসুন্দরী)।

সেরা সুরকার- ইমরান মাহমুদুল (বিশ্বসুন্দরী)।

সেরা কাহিনিকার- গাজী রাকায়েত (গোর)।

সেরা চিত্রনাট্যকার- গাজী রাকায়েত (গোর)।

সেরা সংলাপ রচয়িতা- ফাখরুল আরেফীন খান (গণ্ডি)।

সেরা সম্পাদক- মো. শরিফুল ইসলাম (গোর)।

সেরা শিল্পনির্দেশক- উত্তম গুহ (গোর)।

সেরা চিত্রগ্রাহক (যৌথভাবে)- পঙ্কজ পালিত ও মো. মাহবুব উল্লাহ নিয়াজ (গোর)।

সেরা শব্দগ্রাহক- কাজী সেলিম আহমেদ (গোর)।

সেরা পোশাক ও সাজসজ্জা- এনামতারা বেগম (গোর)।

সেরা মেকআপ- মোহাম্মদ আলী বাবুল (গোর)।