https://public-voice24.com/wp-content/uploads/2022/03/favicon.ico-300x300.png
ঢাকারবিবার , ৫ই ফেব্রুয়ারি, ২০২৩ খ্রিস্টাব্দ

প্রতিপক্ষের ছুরিকাঘাতে কলেজছাত্র খুন, নারায়ণগঞ্জ

পাবলিক ভয়েস
মার্চ ১২, ২০২২ ৪:১০ অপরাহ্ণ
Link Copied!

নারায়ণগঞ্জ শহরের সৈয়দপুর পাথরঘাটে প্রতিপক্ষের ছুরিকাঘাতে মাহফুজ আহমেদ (২০) নামে এক কলেজছাত্র খুন হয়েছেন।

শনিবার (১২ মার্চ) সকালে রাজধানী ধানমন্ডির একটি প্রাইভেট ক্লিনিকে চিকিৎসাধীন অবস্থায় তিনি মারা যান।

নিহত মাহফুজ নারায়ণগঞ্জ কলেজের একাদশ শ্রেণির ছাত্র। পাশাপাশি কুমোদিনী গার্মেন্টসে কাজ করতেন। তিনি শহরের খানপুর বউ বাজার এলাকার হারুনুর রশিদের ছেলে।

স্থানীয়রা জানান, দেড় বছর আগে শহরের চাষাঢ়া এলাকায় দেওভোগের কয়েকজনের সঙ্গে মাহফুজের অনুসারীদের মারামারি ঘটে। এর জের ধরে শুক্রবার রাতে মাহফুজের অনুসারীরা খবর পান ওই কয়েকজন পিকনিক থেকে এসে সৈয়দপুর পাথরঘাটে নামবেন। এরই পরিপ্রেক্ষিতে মাহফুজসহ তার অনুসারীরা সেখানে যান। কিন্তু প্রতিপক্ষের লোকজন বেশি থাকায় মাহফুজের অনুসারীরা কেটে পরলেও মাহফুজ সেখানে রয়ে যান। পরে তারা মাহফুজকে একা পেয়ে ছুরিকাঘাত করে পালিয়ে যান।

স্থানীয়রা উদ্ধার করে শুক্রবার রাতে তাকে আহত অবস্থায় নারায়ণগঞ্জ শহরের সদর জেনারেল (ভিক্টোরিয়া) হাসপাতালে নিয়ে যান। পরে সেখানে অবস্থার অবনতি ঘটলে চিকিৎসার জন্য ঢাকায় নিয়ে যাওয়া হয়।

মাহফুজের মা মাবিয়া বেগম বলেন, ‘আমার মাত্র একটি ছেলেই ছিল। আমার ছেলেকে ডেকে নিয়ে তারা হত্যা করেছে। ছেলেটিই আমার বেঁচের থাকার সম্বল ছিল। আমি সন্তান হত্যার বিচার চাই।’

নারায়ণগঞ্জ সদর মডেল থানার পরিদর্শক (তদন্ত) আজিজুল হাওলাদার জাগো নিউজকে বলেন, প্রতিপক্ষের সঙ্গে দ্বন্দ্বের জের ধরে এ হত্যাকাণ্ডের ঘটনা ঘটে। নিহতের মরদেহ ময়নাতদন্তের জন্য নারায়ণগঞ্জ শহরের সদর জেনারেল (ভিক্টোরিয়া) হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে। ময়নাতদন্তের রিপোর্ট এলে বিস্তারিত বলতে পারবো।

নারায়ণগঞ্জ সদর মডেল থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) শাহজামান জাগো নিউজকে বলেন, এ ঘটনায় বিস্তারিত জানার জন্য নিহত মাহফুজের অনুসারী তিনজনকে থানায় রেখেছি। তাদের মাধ্যমে আমরা বিস্তারিত ঘটনা জানার চেষ্টা করবো। এ হত্যাকাণ্ডের সঙ্গে যারা জড়িত তাদের দ্রুত আইনের আওতায় আনা হবে।