https://public-voice24.com/wp-content/uploads/2022/03/favicon.ico-300x300.png
ঢাকাশুক্রবার , ৩রা ফেব্রুয়ারি, ২০২৩ খ্রিস্টাব্দ

প্রত্যাহার হয়নি নিষেধাজ্ঞা, কার্যক্রম বন্ধ গণ বিশ্ববিদ্যালয়ে ছাত্র সংগঠনগুলোর

পাবলিক ভয়েস
মার্চ ১৯, ২০২২ ১২:০৯ অপরাহ্ণ
Link Copied!

করোনাকালে গণ বিশ্ববিদ্যালয়ের বিভিন্ন সামাজিক ও সাংস্কৃতিক সংগঠনগুলোর কার্যক্রমে যে নিষেধাজ্ঞা দেওয়া হয়েছিল তা প্রত্যঅহার হয়নি। স্বাভাবিক শিক্ষা কার্যক্রম চালু হওয়ার পরেও মুক্ত চিন্তা ও মুক্তবুদ্ধি চর্চার সংগঠনগুলো বন্ধ রাখার বিষয়টিকে ভালোভাবে নিচ্ছেন না শিক্ষার্থীরা। সংগঠনগুলোর স্বাভাবিক কার্যক্রম পরিচালনায় বিশ্ববিদ্যালয় কর্তৃপক্ষকে নিষেধাজ্ঞা তুলে নেওয়ার আহ্বান জানিয়েছেন শিক্ষার্থীরা।

জানা যায়, ২০২০ সালের মার্চ মাস হতে ২০২১ সালের সেপ্টেম্বর মাস পর্যন্ত গণ বিশ্ববিদ্যালয় বন্ধ থাকার পর গত ৪ অক্টোবর থেকে সশরীরে শিক্ষা কার্যক্রম চালু হয়। তারপর জানুয়ারিতে সেমিস্টার ফাইনাল পরীক্ষার পর ক্যাম্পাস বন্ধ হয়। ২৬ ফেব্রুয়ারি থেকে আবার সশরীরে পাঠদান শুরু হলেও কোনও কারণ ছাড়াই করোনাকালে ছাত্র সংগঠন বন্ধের নিষেধাজ্ঞা এখনও বহাল রয়েছে।

বিশ্ববিদ্যালয়ের ছাত্র উপদেষ্টা ও ডেপুটি রেজিস্ট্রার আবু মো. মোকাম্মেল বলেন, এটা সময় সাপেক্ষ বিষয়। উপদেষ্টামণ্ডলীর সম্মিলিত আলোচনা সাপেক্ষে পরবর্তী পদক্ষেপ নির্ধারণ করা হবে। তবে এই বিষয়ে এখনই নির্দিষ্ট করে কিছু বলা যাচ্ছে না।

বিশ্ববিদ্যালয়ের বিতর্ক সংগঠন ডিবেটিং সোসাইটির (জিবিডিএস) যুগ্ম আহ্বায়ক মোহাম্মদ রিয়াদুজ্জামান রিয়াদ বলেন, জাতীয় পর্যায়ে অর্জন, জাতীয় ও আন্তর্জাতিক পর্যায়ে ভাবমূর্তি উন্নয়নে কাজ করলেও দিনের পর দিন ছাত্র সংগঠনগুলোর কার্যক্রম বন্ধ রয়েছে। এতে আমরা যথেষ্ট উদ্বিগ্ন। খুব দ্রুত জিবিডিএসসহ অন্য সব সংগঠনের কার্যক্রম চালু করা সম্ভব না হলে সংগঠনগুলো তাদের নিজের অবস্থান হারাবে।

মিউজিক কমিউনিটির (জিবিএমসি) সাধারণ সম্পাদক আবু মোহাম্মদ রুইয়াম বলেন, আসলে বিশ্ববিদ্যালয়ের যতগুলো সংগঠন আছে, সবাই নিজেদের কাজের মাধ্যমে গণ বিশ্ববিদ্যালয়কে রিপ্রেজেন্ট করে। আমি আমাদের  (জিবিএমসি)-র কথাই বলি, এই পর্যন্ত বিশ্ববিদ্যালয়ে আমরা তিনটি বড় মিউজিক্যাল প্রোগ্রামসহ বেশ কয়েকটি প্রোগ্রাম করেছি। যেগুলো বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রশাসন, শিক্ষক, শিক্ষার্থীসহ সারা দেশের বিভিন্ন মহলে প্রশংসা কুড়িয়েছে। আমরা ভবিষ্যতে বিশ্ববিদ্যালয়ের সাংস্কৃতিক অঙ্গন নিয়ে কাজ করতে চাই।

ছাত্র সংগঠনগুলো কবে নাগাদ খোলা হবে এমন প্রশ্নের জবাবে বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য (ভারপ্রাপ্ত) অধ্যাপক ড. আবুল হোসাইন জানান, শিক্ষার্থীদের জন্য ছাত্রসংগঠন খুলে দিতে পারা আমাদের জন্যই ভালো। কিন্তু আগের প্রশাসনের সিদ্ধান্ত অনুযায়ী করোনা পরিস্থিতিতে সব কার্যক্রম স্থগিত করা হয়েছিল। আমরা আলোচনা সাপেক্ষে এটা খুলে দেওয়ার চেষ্টায় আছি।