https://public-voice24.com/wp-content/uploads/2022/03/favicon.ico-300x300.png
ঢাকাশুক্রবার , ২৭শে জানুয়ারি, ২০২৩ খ্রিস্টাব্দ

ইউক্রেনে ফের হাইপারসনিক ক্ষেপণাস্ত্র হামলার আবারো দাবি রাশিয়ার

পাবলিক ভয়েস
মার্চ ২০, ২০২২ ৪:০৬ অপরাহ্ণ
Link Copied!

ইউক্রেনে ফের হাইপারসনিক ক্ষেপণাস্ত্র হামলার দাবি করেছে রাশিয়া। দেশটি বলছে, এ ঘটনায় ইউক্রেনের একটি জ্বালানি স্টোরেজ সাইট ধ্বংস হয়ে গেছে। রুশ প্রতিরক্ষামন্ত্রীর বরাত দিয়ে  রবিবার এক প্রতিবেদনে এ খবর জানিয়েছে কাতারভিত্তিক সংবাদমাধ্যম আল জাজিরা।

প্রতিবেদনে বলা হয়, এ নিয়ে টানা দ্বিতীয় দিনের মতো ইউক্রেনে হাইপারসনিক ক্ষেপণাস্ত্র হামলার দাবি করলো মস্কো।

রুশ প্রতিরক্ষামন্ত্রী বলেন, মাইকোলাইভ অঞ্চলের কোস্ত্যন্তিনিভকার এলাকার কাছে হাইপারসনিক ব্যালিস্টিক ক্ষেপণাস্ত্র হামলা চালিয়েছে রাশিয়া। এ ঘটনায় ইউক্রেনীয় বাহিনীর জ্বালানি ও লুব্রিকেন্টের একটি বড় স্টোরেজ সাইট ধ্বংস হয়ে গেছে।

রাশিয়ার এমন দাবির বিষয়ে অবশ্য তাৎক্ষণিকভাবে ইউক্রেনের পক্ষ থেকে কোনও মন্তব্য পাওয়া যায়নি।

এর আগে শনিবার ইউক্রেনে প্রথমবারের মতো হাইপারসনিক ক্ষেপণাস্ত্র নিক্ষেপের দাবি করে রাশিয়া। এদিন দেশটির পশ্চিমাঞ্চলের অস্ত্র গুদামে শক্তিশালী হামলার কথা জানায় রুশ প্রতিরক্ষা মন্ত্রণালয়।

প্রথম দিনের হাইপারসনিক ক্ষেপণাস্ত্র হামলার বিষয়ে রুশ সরকারের মুখপাত্র ইগোর কোনাশেনকোভ দাবি করেন, ইউক্রেনের ভূগর্ভস্থ সামরিক স্থপনায় হাইপারসনিক প্রযুক্তির কিনজাল ক্ষেপণাস্ত্র ব্যবহার করা হয়েছে। সেখানে ইউক্রেনের ক্ষেপণাস্ত্র ও সেনাদের বিমানের গোলাবারুদ সংরক্ষণ ছিল। সফলতার সঙ্গেই আঘাত হেনেছে রুশ ক্ষেপণাস্ত্রটি।

রাশিয়ার সামরিক বাহিনীর তথ্যমতে, হামলায় ব্যবহৃত কিনজাল ক্ষেপণাস্ত্র ব্যবস্থা দুই হাজার কিলোমিটার দূরের লক্ষ্যবস্তুতে আঘাত হানার সক্ষমতা রাখে। একইসঙ্গে আকাশ ও ক্ষেপণাস্ত্র প্রতিরক্ষা ব্যবস্থা ফাঁকি দিতে পারে এটি। উল্লেখ্য, শব্দের চেয়ে অন্তত পাঁচগুণ বেশি দ্রুত গতিসম্পন্ন যে কোনও প্রযুক্তিকে হাইপারসনিক বলা হয়ে থাকে।