https://public-voice24.com/wp-content/uploads/2022/03/favicon.ico-300x300.png
ঢাকাশনিবার , ৪ঠা ফেব্রুয়ারি, ২০২৩ খ্রিস্টাব্দ

ভাড়া নিয়ে তর্কে চবি ছাত্রকে মারধর, রাস্তায় আন্দোলন

পাবলিক ভয়েস
মার্চ ২২, ২০২২ ৭:০৩ অপরাহ্ণ
Link Copied!

ভাড়া নিয়ে তর্কের জের ধরে আকিভ জাভেদ নামে চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয়ের (চবি) এক ছাত্রকে মারধর করে চলে যান সিএনজিচালিত অটোরিকশার এক চালক। এ ঘটনার প্রতিবাদের বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রধান ফটক আটকে রেখে ও টায়ার জ্বালিয়ে আন্দোলন করেছেন শিক্ষার্থীরা।

মঙ্গলবার (২২ মার্চ) বিকেল ৪টার দিকে মূলফটক আটকে দেন শিক্ষার্থীরা। এ সময় বাস বের হতে না পারায় ভোগান্তিতে পড়েন শিক্ষকরা। পরে বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসনের আশ্বাসে বিকেল সাড়ের ৫টার দিকে ফটক ছেড়ে দেন আন্দোলনরত শিক্ষার্থীরা।

খোঁজ নিয়ে জানা যায়, বিশ্ববিদ্যালয়ের এক শিক্ষার্থীর সঙ্গে ভাড়া নিয়ে সিএনজিচালিত অটোরিকশার এক চালকের কথা কাটাকাটি হয়। এ সময় ২০১৬-১৭ সেশনের শিক্ষার্থী আকিভ জাভেদ এগিয়ে গেলে তার সঙ্গেও ঝগড়া হয় ওই চালকের। এক পর্যায়ে জাভেদকে চড়-থাপ্পড় দেন ওই চালক। এ ঘটনার প্রতিবাদে ফটক আটকে দেন শিক্ষার্থীরা। এ সময় টায়ার জ্বালিয়ে বিক্ষোভও করেন তারা।

ভুক্তভোগী আকিভ জাভেদ বলেন, এক শিক্ষার্থীর সঙ্গে ভাড়া নিয়ে সিএনজিচালক তর্ক করছিল। বিষয়টি নিয়ে সিএনজিচালকের সঙ্গে কথা বলতে গেলে সে বাজে ব্যবহার করে। এক পর্যায়ে আমাকে থাপ্পড় দিয়ে সিএনজি চালিয়ে চলে যায়।

আন্দোলনকারী শিক্ষার্থী ফোরকানুল আলম বলেন, প্রশাসনের দুর্বলতার কারণে বিভিন্ন সময়ই বহিরাগতদের হাতে চবি শিক্ষার্থীরা হেনস্তার শিকার হয়েছে। আমরা অনেকবার মৌখিক ও লিখিত অভিযোগ দিয়েছি। কিন্তু প্রশাসন কোনো ব্যবস্থা নেয়নি। এর কারণেই আজকে আবার শিক্ষার্থীর ওপর হাত দেওয়ার ঘটনা ঘটেছে। এ জন্য আমরা ফটক আটকে আন্দোলন করি। পরে প্রশাসনের আশ্বাসে ফটক থেকে আমরা সরে আসি।

বিশ্ববিদ্যালয়ের সহকারী প্রক্টর আহসানুল কবির পলাশ বলেন, এক শিক্ষার্থীকে মারধর করা হয়েছে বলে শুনেছি। ব্যবস্থা নেওয়া হচ্ছে। শিগগির সমাধান হবে।