Sunday 2nd October 2022

পাবলিক ভয়েস

পৃথিবীর মানুষের জন্য একটি কণ্ঠস্বর

স্কুলমাঠে ‘অশালীন’ নৃত্য, আ.লীগ নেতা ও শিক্ষকসহ ৫ জনকে শোকজ

মার্চ ৩১, ২০২২ by পাবলিক ভয়েস
No Comments

নাটোরের সিংড়া উপজেলার রামানন্দ-খাজুরা ইউনিয়নের বিনগ্রামে মহান স্বাধীনতা ও জাতীয় দিবসের অনুষ্ঠানে ‘অশালীন’ নৃত্য পরিবেশনের অভিযোগ উঠেছে। সোমবার (২৮ মার্চ) দিবাগত রাতে অনুষ্ঠানের আয়োজন করে বিনগ্রাম উচ্চ বিদ্যালয়, সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় ও স্থানীয় প্রভাত কাকুলী নামের একটি সমিতি।

অনুষ্ঠানের ভিডিও সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ছড়িয়ে পড়লে ব্যাপক সমালোচনা শুরু হয়। এর পরিপ্রেক্ষিতে আওয়ামী লীগ নেতা ও শিক্ষকসহ পাঁচ জনকে কারণ দর্শানোর নোটিশ (শোকজ) দেওয়া হয়েছে।

চার আওয়ামী লীগ নেতাকে সাত দিন এবং বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক ও পরিচালনা পর্ষদের সভাপতিকে তিন দিনের শোকজের জবাব দিতে হবে। জবাব সন্তোষজনক না হলে অভিযুক্তদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।

বুধবার (৩০ মার্) রামানন্দ-খাজুরা ইউনিয়ন আওয়ামী লীগ সভাপতি ইদ্রিস আলী ও সাধারণ সম্পাদক মুকুল হোসেন চারটি শোকজে স্বাক্ষর করেন।

শোকজ নোটিশ পাওয়া চার জন হলেন— ৯ নম্বর ওয়ার্ড আওয়ামী লীগের সভাপতি দেলোয়ার হোসেন, সহ-সভাপতি ইউনুস আলী, আওয়ামী লীগ কর্মী রাফিউল ইসলাম ও হারুন অর রশিদ।

নোটিশে বলা হয়েছে, ২৬ মার্চ মহান স্বাধীনতা ও জাতীয় দিবস উদযাপন উপলক্ষে ২৮ মার্চ দলীয় শৃঙ্খলা ভঙ্গ করে অশালীন নৃত্যানুষ্ঠান আয়োজন করা হয়েছে। এতে দলীয় ভাবমূর্তি ক্ষুণ্ন হয়েছে। কেন আপনার বিরুদ্ধে দলীয় শৃঙ্খলা ভঙ্গের কারণে সাংগঠনিক ব্যাবস্থা গ্রহণ করা হবে না, তার জবাব সাত দিনের মধ্যে পাঠাতে হবে।

এদিকে বিনগ্রাম উচ্চ বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক আবদুল কুদ্দুস ও পরিচালনা পর্ষদের সভাপতিকে শোকজ করেছেন উপজেলা মাধ্যমিক শিক্ষা কর্মকর্তা আমিনুর রহমান। ওই শোকজের জবাব তিন দিনের মধ্যে দিতে হবে।

জানা গেছে, গত ২৮ মার্চ সকাল থেকে সন্ধ্যা পর্যন্ত ক্রীড়া প্রতিযোগিতা ও সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠানের আয়োজন করে বিনগ্রাম উচ্চ বিদ্যালয়, সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় ও স্থানীয় প্রভাত কাকুলী নামের একটি সমিতি। ওই সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠানে বিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীরা অংশ নেয়। কিন্তু একই মঞ্চে কাকুলী সমিতির আয়োজনের ঘোষণায় সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠানে স্থানীয় শিল্পীদের গানের পাশাপাশি বগুড়ার একটি ডান্স ক্লাবের শিল্পীদের অশ্লীল নৃত্যু পরিবেশন করা হয়। নাচের ভিডিও সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ছড়িয়ে পড়লে সমালোচনা শুরু হয়। বিষয়টি নজরে আসার পর শোকস নোটিশ পাঠানো হয়েছে।

প্রত্যক্ষদর্শীরা জানায়, ওই অনুষ্ঠান রাত ৮টা থেকে ১টা পর্যন্ত চলে। অনুষ্ঠান সঞ্চালনা করেন আওয়ামী লীগ কর্মী রাফিউল ইসলাম। অনুষ্ঠানের সভাপতি হিসেবে ওয়ার্ড আওয়ামী লীগের সভাপতি দেলোয়ার হোসেনের নাম ঘোষণা করা হয়।

এ বিষয়ে বিনগ্রাম উচ্চ বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক আবদুল কুদ্দুস বলেন, ‘আমরা ছেলেমেয়েদের খেলাধুলা শেষ করে বাড়ি চলে আসি। আর শিক্ষকদের অনুপস্থিতিতে এ ধরনের নাচ-গানের আয়োজন করা হয়েছে। স্কুলের কোনও শিক্ষক এতে জড়িত নন। তবে শোকজ নোটিশ পেলে জবাব দেওয়া হবে।’

প্রভাত কাকুলী সমিতির সভাপতি ইউনুছ খান জানান, অনুষ্ঠানের আয়োজক তার সমিতি হলেও ওই অশ্লীল নৃত্য পরিবেশনের বিষয়ে তিনি জড়িত নন।

অনুষ্ঠানের সভাপতি আওয়ামী লীগ নেতা দেলোয়ার হোসেন দেলু বলেন, ‘ওই নাচ-গানের আয়োজনের সঙ্গে আমি জড়িত নই।’

এ বিষয়ে রামানন্দ-খাজুরা ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সভাপতি ইদ্রিস আলী ও সাধারণ সম্পাদক মুকুল হোসেন জানান, চার জনকে শোকজের পাশাপাশি ঘটনার বিষয়ে জড়িতদের শনাক্ত করতে তদন্তও করা হচ্ছে। এতে জড়িত কেউ ছাড় পাবে না।

উপজেলা মাধ্যমিক শিক্ষা কর্মকর্তা আমিনুর রহমান বলেন, তিন দিনের মধ্যে প্রধান শিক্ষক ও পরিচালনা পর্ষদ সভাপতিকে জবাব দিতে বলা হয়েছে। জবাব পেলে পরবর্তী প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

সিংড়া উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) এম এম সামিরুল ইসলাম বলেন, বিদ্যালয়ের মাঠে এই ধরনের অশ্লীল নাচ-গানের আয়োজন করা খুবই দুঃখজনক। শোকজের জবাব পেলে তদন্ত সাপেক্ষে ঘটনায় জড়িতদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

Leave a Reply

Your email address will not be published.