Saturday 24th September 2022

পাবলিক ভয়েস

পৃথিবীর মানুষের জন্য একটি কণ্ঠস্বর

হত্যার পর পুঁতে রাখা হলো শোবার ঘরে

এপ্রিল ২, ২০২২ by পাবলিক ভয়েস
No Comments

রংপুরের কাউনিয়া উপজেলার টেপামধুপুর গ্রামে সাইদুল ইসলাম (২২) নামে এক যুবককে কুপিয়ে হত্যার পর লাশ ঘরের মধ্যে পুঁতে ফেলা হয়েছে। শনিবার (২ এপ্রিল) মাটি চাপা দেওয়া অবস্থায় লাশটি উদ্ধার করে পুলিশ। এ ঘটনায় গৃহবধূ বুলবুলি বেগম ও তার স্বামী রফিকুল ইসলামকে আটক করেছে।

পুলিশ জানিয়েছে, কাউনিয়া উপজেলার টেপামধুপুর ইউনিয়নের আজম খাঁ গ্রামের অজিমুদ্দিনের ছেলে সাইদুল শুক্রবার সন্ধ্যায় বাসা থেকে বের হন। এরপর রাতে আর ফেরেননি। স্বজনরা খোঁজ করেও তার সন্ধান পাননি।

শনিবার বেলা ১১টার দিকে পার্শ্ববর্তী রফিকুল ইসলামের বাড়ির উঠানে রক্ত পড়ে থাকতে দেখে এলাকাবাসী ও স্বজনরা পুলিশে খবর দেয়। খবর পেয়ে পুলিশ ঘটনাস্থলে এসে রফিকুলের শোবার ঘরে মাটিচাপা অবস্থায় লাশ উদ্ধার করে। ঘটনায় জড়িত থাকার অভিযোগে পুলিশ রফিকুল ও তার স্ত্রী বুলবুলিকে আটক করে থানায় নিয়ে যায়।

পুলিশ জানায়, লাশ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য রংপুর মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালের মর্গে পাঠানো হয়েছে। নিহত সাইদুলের ঘাড়ে ও শরীরের বিভিন্ন স্থানে আঘাতের চিহ্ন রয়েছে। ধারণা করা হচ্ছে, তাকে বাসায় ডেকে এনে কুপিয়ে হত্যা করে লাশ ঘরের মাটি খুঁড়ে পুঁতে রাখা হয়েছিল।

এলাকাবাসীর দাবি, নিহতের সঙ্গে বুলবুলির প্রেমের সম্পর্ক ছিল। বিষয়টি তার স্বামী জানতে পেরে স্ত্রীকে দিয়েই ওই যুবককে ডেকে এনে হত্যা করেছে।

কাউনিয়া থানার ওসি মাসুমুর রহমানের বলেন, ‘প্রেমের জেরে হত্যাকাণ্ডটি ঘটেছে বলে আমরা প্রাথমিকভাবে জেনেছি। ঘটনার সঙ্গে জড়িত সন্দেহে রফিকুল ইসলাম ও বুলবুলি বেগমকে আটক করে থানায় নিয়ে আসা হয়। স্ত্রীর সঙ্গে অবৈধ সম্পর্ক গড়ে তোলায় ক্ষিপ্ত হয়ে সাইদুলকে হত্যা করেছে বলে জানিয়েছে রফিকুল। তবে বুলবুলি বেগমকে জিজ্ঞাসাবাদ করা হচ্ছে। এ ঘটনায় মামলার প্রস্তুতি চলছে।’

Leave a Reply

Your email address will not be published.